কখন সূর্যের আলো থেকে ভিটামিন ডি পাওয়া যায়

আমরা কম বেশি সবাই জানি যে সূর্যের আলো হতে ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায়। কিন্তু সব সময়-ই কি সূর্যের আলো থেকে ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায়? না সব সময় পাওয়া যায় না। আজকে আমি আপনাদেরকে কখন সূর্যের আলো হতে ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায় এবং ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়ার জন্য কতক্ষণ সূর্যালোকে থাকতে হবে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানাবো।

আমাদের শরীরে ভিটামিন ‘ডি’ শতকরা ৮০ ভাগেরও বেশি সূর্যের আলো হতে পেয়ে থাকি। আর বাকি শতকরা ২০ ভাগ বিভিন্ন খাদ্য উপাদানের মাধ্যমে পেয়ে থাকি। যেমনঃ দুধ, ডিম, স্যালমন মাছ, পোনা ও মাগুর মাছ প্রভৃতি। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে ভিটামিন ‘ডি’ এর প্রয়োজনীয়তা অনেক।

বাংলাদেশে সময় সকাল ১০ টা হতে বিকাল ৩ পর্যন্ত এই সময়ে সূর্য হতে ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায়। পৃথিবীর ভৌগোলিক অবস্থান অনুযায়ী এই সময়ের পার্থক্য রয়েছে। সূর্য যখন মাথার উপরে থাকবে তখন বেশি পরিমানে ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায়। সূর্য যখন হেলানো অবস্থায় থাকে অর্থাৎ পূর্ব-পশ্চিম আকাশে থাকে তখন ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায় না। এ সময় সূর্যে অতিবেগুনি ক্ষতিকর রশ্নি থাকে যা কান্সারের ঝুকি বাড়ায়। তাই এ সময়ে রোদ পোহাবেন না।

ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়ার জন্য কতক্ষণ সূর্যালোকে থাকতে হবে সেটি নির্ভর করবে আপনার দেহের রঙের উপর। যাদের দেহের রঙ পাতলা অর্থাৎ ফর্সা তাদের ত্বকে মেলালিন এর পরিমান কম থাকে। যার কারণে সূর্যের অতিবেগুনী রশ্নি খুব সহজেই শরীরে প্রবেশ করতে পারে। তাই যাদের দেহের রঙ ফর্সা তারা প্রতিদিন ১০-১৫ মিনিট সূর্যালোকে থাকলেই ভিটামিন ‘ডি’ পেতে পারেন। আবার যাদের দেহের রঙ গাঢ় অর্থাৎ কালো তাদের ত্বকে মেলানিন এর পরিমান বেশি থাকে। যার কারণে সূর্যের অতিবেগুনী রশ্নি প্রবেশে বাধা সৃষ্টি করে। এজন্য কালো বর্ণের ব্যাক্তিদের ফর্সা বর্ণের ব্যাক্তিদের তুলনায় একটু বেশি সূর্যালোকে থাকতে হবে। কালো বা গাঢ় বর্ণের ব্যাক্তিদের সূর্যের আলো হতে ভিটামিন ‘ডি’ পেতে প্রতিদিন ৩০-৬০ মিনিট সূর্যালোকে থাকতে হবে।

পরামর্শঃ আমরা জানলাম সূর্যের আলো হতে ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায়। তাই বলে অধিক সময় ধরে রোদ পোহাবেন না। কারণ এতে আপনার ত্বক পুড়ে যেতে পারে। এছাড়া সূর্যের অতিবেগুনী রশ্নি ক্যান্সারের ঝুকিয়ে বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই সঠিক সময়ে সঠিকভাবে রোদ পোহাবেন। আমাদের এই পোস্টটি কেমন লাগলো জানাতে পারেন কমেন্ট বক্সে। এই রকম আরো পোস্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন এবং আপনার বন্ধুকেরকেও বলুন। ধন্যবাদ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*